নভেম্বরেই নওশাবার ‘মেঘনা কন্যা’

নভেম্বরেই নওশাবার ‘মেঘনা কন্যা’

অনলাইন ডেস্ক :

ছোট পর্দার এক সময়ের ব্যস্ত মডেল-অভিনেত্রী কাজী নওশাবা আহমেদ। মাঝখানে আইনি জটিলতার কারণে শোবিজ থেকে কিছুদিনের জন্য বিরতি নিয়েছিলেন। বিরতির পর আবার ব্যস্ত হয়ে পড়েন এই অভিনেত্রী। নাটকের পাশাপাশি সিনেমাতে অভিনয় করলেও সেটার সংখ্যা একেবারেই কম।

আবার যে কয়েকটি সিনেমায় অভিনয়ের সুযোগ পেয়েছেন, সেগুলোতে তার চরিত্র ছিল ছোট ও স্বল্প পরিসরের। তবে এবার এই অভিনেত্রীকে মিলবে বেশ বড় পরিসরে। চলতি নভেম্বর মাসেই মুক্তি পাচ্ছে নওশাবা অভিনীত বহুল প্রত্যাশিত সিনেমা ‘মেঘনা কন্যা’। এতে নামভ‚মিকায় অভিনয় করেছেন এই অভিনেত্রী। এর মাধ্যমেই প্রথমবার কোনো চলচ্চিত্রের কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। ছবিটি নিয়ে শুরু থেকেই বেশ আশাবাদ ব্যক্ত করে আসছেন তিনি। এবার সময় এসেছে সেই আশার প্রতিফলন দেখার।

মেঘনা কন্যার নির্মাতা ফুয়াদ চৌধুরীর কথাতে বোঝা গেল, আসছে ১৭ নভেম্বর মুক্তি পাচ্ছে নারী পাচার নিয়ে নির্মিত ভিন্ন গল্পের এই সিনেমাটি। এতে দেখা যাবে, নারী পাচার নিয়ে গ্রাম ও শহরের দুই নারীর শেকল ভাঙার গল্প। নির্মাতার মতে, ‘নারী পাচারের মতো একটি কঠিন বিষয়ের সঙ্গে গ্রামীণ পটভূমিতে বলা সিনেমাটির গল্পে রয়েছে দর্শকের জন্য পর্যাপ্ত বিনোদন। পর্দায় নানা রকমের সামাজিক বাধার সম্মুখীন হওয়া ভিন্ন দুটি অবস্থানের নারীর মাধ্যমে বলা হয়েছে স্বপ্ন পূরণের গল্প।’

কাজী নওশাবা আহমেদ ছাড়াও এতে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে আরও অভিনয় করেছেন ফজলুর রহমান বাবু, শতাব্দী ওয়াদুদ, সেমন্তি দাস সৌমি, সাজ্জাদ হোসেইনসহ অনেকে। সঙ্গীত পরিচালনায় চিরকুট ব্যান্ডের সুমী। চলচ্চিত্রটির চিত্রনাট্য ও সংলাপ লিখেছেন ফাহমিদুর রহমান ও আহমেদ খান হীরক। আনোয়ার আজাদ ফিল্মস ও এস জে মোশনস পিকচার্স প্রযোজিত চলচ্চিত্রটির সহযোগিতায় আছে সুইজারল্যান্ড এবং টেলিভিশন পার্টনার দীপ্ত টিভি।

অন্যদিকে একই দিনে মুক্তির কথা রয়েছে দেশবরেণ্য কথাসাহিত্যিক মুহম্মদ জাফর ইকবালের ছোটগল্প অবলম্বনে নির্মিত সিনেমা ‘আজব ছেলে’। সরকারি অনুদানে বানানো মুভিটি সেন্সর বোর্ড থেকে ছাড়পত্র পায় ২০২২ সালে। চিত্রনাট্য লেখা ও পরিচালনার দায়িত্ব পালন করেছেন ছোট পর্দার নাট্যকার মানিক মানবিক। প্রথমে শিরোনাম ‘অদ্ভুত ছেলে’ রাখা হলেও পরে নাম বদলে সরাসরি মূল গল্পের নামই রাখা হয়। শিশুতোষ এ চলচ্চিত্রের প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন রিদওয়ান সিদ্দিকী। এছাড়া অন্যান্য ভ‚মিকায় আছেন ওয়ার্ল্ড মিস ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ তাহমিনা অথৈ, সাজু খাদেম, এবং তৌকীর আহমেদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *